চৌদ্দগ্রামে গৃহবধুকে ধর্ষণের অভিযোগে পিকআপ চালক আটক

চৌদ্দগ্রাম প্রতিনিধি
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে দু সন্তানের জননী এক গৃহবধূকে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তুহিন(২৫) নামের এক পিকআপ চালককে পুলিশ আটক করেছে। আটক কৃত তুহিন উপজেলার কাশিনগর ইউনিয়নের উত্তর যাত্রাপুর গ্রামের আবদুল আলীর ছেলে।
থানায় দায়েরকৃত মামলার সুত্রে জানা গেছে, জেলার চান্দিনা উপজেলার বদরপুরের ছনবাড়ী গ্রামের আবদুল মবিন মজুমদারের মেয়ে দু সন্তানের মা গত ১৩ মে সন্ধ্যায় মাধাইয়া বাজারে কুমিল্লা যাওয়ার জন্য গাড়ীর অপেক্ষা করে। পরে একটি পিকআপে উঠে কুমিল্লার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে ওই গৃহবধু। কিন্তু পিকআপ চালক তুহিন কুমিল্লা না নিয়ে কৌশলে রাতের আধারে তাকে চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কাশিনগরের একটি খালের পাড়ে নিয়ে যায়। সেখানে গৃহবধূকে রাতভর ধর্ষন করে আহত অবস্থায় রেখে পালিয়ে যায় চালক তুহিন। আহত আবস্থায় ওই গৃহবধু পরদিন বাড়ীর ফিরে পরিবারকে ঘটনাটি জানালে তারা তাকে চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। বুধবার রাতে গৃহবধুর বাবা আবদুল মবিন মজুমদার একজনকে আসামী করে চান্দিনা থানায় অভিযোগ দায়ের করলে চান্দিনা ও চৌদ্দগ্রাম থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে তুহিনকে আটক করে।
চান্দিনা থানার ওসি তদন্ত নুরুল বাশার জানান, গৃহবধুর অবস্থা আশংকা জনক সে কোন কথা বলতে পারছে না তার শারীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের দাগ রয়েছে। গৃহবধু সুস্থ হলে ঘটনার প্রকৃত তথ্য জানা যাবে।
চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি শুভরঞ্জন চাকমা জানান, গৃহবধুকে চৌদ্দগ্রামের কাশিনগরে ধর্ষনের অভিযোগে চান্দিনা থানায় মামলা হওয়ায় আমরা অভিযুক্ত তুহিনকে আটক করে চান্দিনা থানায় হস্তান্তর করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *