আওয়ামী লীগের আমলেই শিক্ষাসহ সকল ক্ষেত্রে উন্নয়ন হয়েছে- সাবেক রেলমন্ত্রী মোঃ মুজিবুল হক এমপি


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ৬, ২০২৩, ৭:৩৭ অপরাহ্ন / ১৪৩
আওয়ামী লীগের আমলেই শিক্ষাসহ সকল ক্ষেত্রে উন্নয়ন হয়েছে- সাবেক রেলমন্ত্রী মোঃ মুজিবুল হক এমপি

স্টাফ রিপোর্টার
সাবেক রেলমন্ত্রী ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মুজিবুল হক এমপি বলেছেন, স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং পরবর্তী সময়ে তার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা হাজার হাজার শিক্ষক ও শত শত বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেছেন। বছরের  প্রথমদিন কোটি কোটি শিক্ষার্থীর হাতে বিনামূল্যে নতুন বই তুলে দিচ্ছে সরকার। এছাড়া উপবৃত্তি ও মেধাবীদেরকে ল্যাপটপ দেওয়া হচ্ছে। এমন দৃষ্টান্ত পৃথিবীতে বিরল। আওয়ামী লীগের আমলেই শিক্ষাসহ সকল ক্ষেত্রে উন্নয়ন হয়েছে। বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় আসলে লুটপাটের উন্নয়ন হয়। তাই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে এ সরকারকে টিকিয়ে রাখতে হবে।


সাবেক রেলমন্ত্রী আরও বলেন, আপনারা মানুষ গড়ার কারিগর। আপনারা আলাপ- আলোচনা বা আড্ডায় বসলে প্রাথমিক শিক্ষাসহ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের কথা বলবেন। সাধারণ মানুষ আপনাদের কথা বিশ্বাস করে। আপনাদের এই আলোচনা প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে অগ্রণী ভুমিকা রাখবে।
তিনি আরও বলেন, আমি কৃষকের ছেলে আমার সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারীরা পীরের ও জমিদারের ছেলে। তারা এমপি, মন্ত্রী হয়ে চৌদ্দগ্রামের মানুষের মনে আশা পূরণ করেননি। আমি এমপি নির্বাচিত হয়ে চৌদ্দগ্রামের সকল সেক্টরে উন্নয়ন কাজ করেছি। কৃষকের সন্তান এমপি হলে মানুষ ঠকে না, সেটা প্রমাণ করে দিয়েছি। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী নির্বাচনেও আপনারা নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনার হাত কে শক্তিশালী করবেন। তিনি বুধবার সকালে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম প্রাথমিক শিক্ষক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় কর্মরত প্রাথমিক শিক্ষকদের আয়োজনে শিক্ষক নেতা মজিবুর রহমান বাবলুর সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদ চত্বরে আয়োজিত সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুস সোবহান ভুঁইয়া হাসান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর হোসেন, চৌদ্দগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ ত্রিনাথ সাহা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও পৌর মেয়র জিএম মীর হোসেন মিরু, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ রহমত উল্যাহ বাবুল, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এবিএম এ বাহার, জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য ফারুক আহমেদ মিয়াজী, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আবু তাহের, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আফজালুর রহমান কামাল, ইসহাক খান, মাহমুদুর রহমান খোকন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন ভূঁইয়া, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জিএম জাহিদ হোসেন টিপু, জেলা পরিষদের সদস্য এমরানুল হক কামাল, রফিকুল ইসলাম, কামরুল হাসান মুরাদ, কামরুল আলম মোল্লা, ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুব হোসেন মজুমদার, খলিলুর রহমান মজুমদার, মাহফুজ আলম, জাফর ইকবাল, কাজী ফখরুল ইসলাম ফরহাদ, নাঈমুর রহমান মজুমদার মাসুম, একে খোকন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন রুবেল, শিক্ষকনেতা আবদুল জলিল, আবুল কাশেম, কাজী কামাল পাশা, মোস্তাফিজুর রহমান, শিক্ষক কামরুন নাহার, খালেদ বিন গফুর, তাসলিমা নাসরিন, নুরুল আলম মজুমদার ও কর্মচারী নেতা ইমাম হোসেন প্রমুখ।

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
.#0
#20
#
20