মাদক কারবারিদের সামাজিকভাবে বয়কট করুন – সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এমপি


প্রকাশের সময় : জুলাই ২৬, ২০২৩, ৪:৩৫ অপরাহ্ন / ১৮৩
মাদক কারবারিদের সামাজিকভাবে বয়কট করুন – সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এমপি

চৌদ্দগ্রাম প্রতিনিধি
কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক রেলমন্ত্রী মোঃ মুজিবুল হক এমপি বলেছেন, মাদকসেবীরা আজ সমাজের অভিশাপ। পরিবারের একজন সদস্য মাদকাশক্ত হওয়া মানে ওই পরিবারটি শেষ হয়ে যাওয়া। তারা বাবা, মা ও স্ত্রীর উপর মাদক সেবন করতে টাকার জন্য অত্যাচার নির্যাতন করে এবং চুরি, ছিনতাই করে সমাজটাকে কলুষিত করে ফেলে। তাদেরকে সামাজিকভাবে বয়কট করুন। মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদের তালিকা করে রাস্তায় রাস্তায় টাঙ্গিয়ে দিন। এই তালিকা দেখে পুলিশ প্রশাসন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।


সাবেক রেলমন্ত্রী আরও বলেন, জামাতীরা জঙ্গিবাদে বিশ্বাস করে। তারা চাঁদে মানুষ দেখা গেছে এরকম গুজব ছড়িয়ে আতংক সৃষ্টি করে। তাদের বিষয় আমাদেরকে সজাগ থাকতে হবে।
তিনি আরও বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ একসময় আমাদের স্বপ্ন ছিল। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ সারাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। আমরা উন্নয়নশীল দেশের কাতারে দাঁড়িয়ে আজ স্মার্ট বাংলাদেশ বির্নিমানে স্বপ্ন দেখছি। আমাদের এই স্বপ্ন পুরণে একটা বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে মাদক। তাই মাদক নির্মূলে আমাদের সকলকে আইনশৃংখলা বাহিনীকে সহযোগিতা করার জন্য বলেন।
তিনি বুধবার সকালে “মাদক ও উগ্রবাদকে না বলি স্মার্ট বাংলাদেশ বির্নিমানে ভুমিকা রাখি” এই শ্লোগান নিয়ে কুমিল্লা জেলা পুলিশের আয়োজনে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
চৌদ্দগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ শুভ রঞ্জন চাকমার সভাপতিত্বে সভায় মূখ্য আলোচক ছিলেন কুমিল্রার পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান বিপিএম (বার)। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার আশফাকুজ্জামান বিপিএম।
মাদকের বিরুদ্ধে ব্যাতিক্রমী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চৌদ্দগ্রাম পৌরসভার মেয়র জিএম মীর হোসেন মিরু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ রহমত উল্যাহ বাবুল, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এবিএম এ বাহার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রাশেদা আখতার, উজিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান নাঈমুর রহমান মজুমদার মাসুম, কালিকাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুব হোসেন মজুমদার, শিবের বাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হামিদা খাতুন চৌধুরী, মিয়াবাজার তোষণ রফিক উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক হাসিনা আক্তার, শিক্ষার্থী সাদিয়া সাত্তার প্রমুখ।

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
.#0
#20
#
20